এখানেই বিনোদন

যেভাবে ধর্ষণের মামলা থেকে রেহাই পেলেন প্রযোজক


বলিউডের জনপ্রিয় প্রযোজক ভূষণ কুমার। ২০২১ সালের মাঝ সময়ে তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়। প্রায় আড়াই বছর পর অবশেষে সেই মামলা থেকে রেহাই পেলেন ভূষণ।

যথোপযুক্ত প্রমাণের অভাবে ভূষণকে ‘নির্দোষ’ ঘোষণা করলেন মুম্বাই আদালত। ‘বি সামারি রিপোর্ট’র ভিত্তিতে বেকসুর খালাস পেয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, প্রযোজনা সংস্থায় কাজ দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে কয়েক বছর ধরে ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ তোলেন এক নারী। পরে ২০২১ সালে এফআইআর দায়ের করেন সেই নির্যাতিতা।

ওই নারী অভিযোগ করেন, ২০২১ সালে ভূষণের চাকরি দেওয়ার লোভ দেখিয়ে তাকে প্রায় তিন বছর ধরে শারীরিকভাবে নির্যাতন করেছেন ভূষণ। পাশাপাশি ক্রমাগত তার ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও ফাঁস করে দেওয়ার হুমকিও দিতেন বলিউডের এই প্রযোজক। পরে ২০২১ সালে ভূষণের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়।

এদিকে চলতি বছরের এপ্রিল মাসে ধর্ষণের মামলা প্রত্যাহার করার আর্জি জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন ভূষণ। অন্যদিকে অভিযোগকারী নিজেও তার অভিযোগ তুলে নিয়েছেন, মূলত সে মর্মেই আদালতের কাছে ভূষণ মামলা প্রত্যাহারের আবেদন জানালে তখন বম্বে হাইকোর্ট তার আবেদন গ্রাহ্য করেননি।

অবশেষে নভেম্বর মাসে ‘বি সামারি রিপোর্ট’র ভিত্তিতে রেহাই পেলেন ভূষণ। এর আগেও ভূষণের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ ওঠে। ২০১৮ সালে হ্যাশট্যাগ ‘মিটু’ আন্দোলন চলাকালীনও যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠেছিল এই প্রযোজকের বিরুদ্ধে।

‘বি সামারি রিপোর্ট’ অনুযায়ী, অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যথেষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায়নি। গত ৯ নভেম্বর সেই রিপোর্টই অন্ধেরি ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে জমা দেয় পুলিশ। আর সেই রিপোর্ট বিবেচনা করেই ভূষণকে নির্দোষ ঘোষণা করে আদালত।

প্রসঙ্গত, ভূষণের প্রযোজিত নতুন সিনেমা ‘অ্যানিম্যাল’। শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি। আর নতুন সিনেমা মুক্তির আগে আইনি জটিলতা কেটে যাওয়ায় ব্যাপক স্বস্তিতে ভূষণ।

সূত্র : আনন্দবাজার

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

70,000FansLike
280,000SubscribersSubscribe

Latest Articles

Translate »