এখানেই বিনোদন

শ্রাবন্তীর প্রাক্তনের সঙ্গে নতুন প্রেমিকার ছবি ভাইরাল


প্রেম আর বিয়ে নিয়ে বরাবরই টালিউড অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের মন ভেঙেছে। তৃতীয় স্বামী রোশন সিংয়ের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর থেকে মা-বাবা আর ছেলেকে নিয়ে আরবানার আবাসনেই থাকছেন তিনি।

আর বাইপাসের ধারের এই বিলাসবহুল আবাসনের বাসিন্দারই প্রেমে পড়েছিলেন। প্রথম দিকে ব্যাপারটা গোপন রাখার শত চেষ্টা করলেও তা সফল হয়নি।

ব্যবসায়ী অভিরূপ নাগ চৌধুরীর সঙ্গে শ্রাবন্তীর প্রেম ছিল এক সময় ওপেন সিক্রেট। অবশ্য অভিনেত্রী কখনই সেই বিষয়ের প্রতিক্রিয়া দেননি।

তবে শ্রাবন্তীর এ প্রেমও অতীত। একসময় শোনা যায় মালদ্বীপে গিয়েছিলেন শ্রাবন্তী এই প্রেমিকের হাত ধরেই। সেই ট্রিপে অভিনেত্রীর সঙ্গে ছিলেন ছেলে ঝিনুক ও তার প্রেমিকা দামিনী।

ভাঙা প্রেমের ক্ষত থেকে বেরিয়ে এসেছেন অভিরূপ, অন্তত তার সামাজিকমাধ্যমের পোস্টগুলো সেরকমই ইঙ্গিত করছে। শেলি চৌধুরী নামে এক নারীর সঙ্গে ভালোবাসা মাখা ছবি দিচ্ছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

২০২২ সালের মার্চ মাসে শ্রাবন্তীর বাড়ির পূজাতেও অংশ নিতে দেখা গিয়েছিল অভিরূপকে। একসময় সোশ্যাল মিডিয়াতে একে-অপরকে ফলো করতেন তারা। তবে আনফলো করে দিয়েছেন তা-ও মাসছয়েক হলো।

অভিরূপকে নিয়ে প্রশ্ন করা হলে শ্রাবন্তীর সেই সময় জবাব ছিল, আমরা একই আবাসনে থাকি। এখনো ভালো বন্ধু। কোনো বিচ্ছেদ হয়নি। অভিরূপের কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর আমি।

যদিও এখনো আইনি বিচ্ছেদ হয়নি শ্রাবন্তী ও তার তৃতীয় স্বামী রোশনের। আদালতে চলছে মামাল। শোনা যায়, মোটা অঙ্কের ভরণপোষণ দাবি করেছেন শ্রাবন্তী। ছাদ আলাদা হলেও কাগজে-কলমে এখনো স্বামী-স্ত্রী তারা। ডিভোর্সের মামলা আদালতে বিচারাধীন। ডিভোর্সের সঙ্গে ভরণপোষণও দাবি করেছেন শ্রাবন্তী। ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরেই সেই খবর প্রকাশ্যে এসেছিল। প্রতি মাসে ৭ লাখ টাকা ভরণপোষণ দাবি করেছেন অভিনেত্রী, জানিয়েছিলেন রোশনের আইনজীবী শ্যামল মণ্ডল। আপাতত তা নিয়েই চলছে মামলা।

কাজের সূত্রে অবশ্য অনেক ব্যস্ত শ্রাবন্তী। দিনকয়েক আগেই পূজা দিলেন তারাপিঠে। লাল পাড়ের সাদা শাড়িতে দেখা মেলে অভিনেত্রীর। কপালে সিঁদুরের ফোঁটা, গলায় সোনার হালকা চেন, কানে ঝুমকো। দেবী চৌধুরানীর শুটিং শুরু করার আগে প্রণাম সেরে আসেন তারা মাকে।

প্রসঙ্গত, পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্রের এ ছবিতে দেবী চৌধুরানী বা প্রফুল্লর চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। ছবিতে অভিনেত্রীর তিনটি লোক। প্রথমটি বধূবেশ। তার পরেরটি শ্বশুরবাড়ি থেকে চলে আসার পর সাজবদল। আর একদম শেষে অভিনেত্রী আসবেন দেবী চৌধুরানীর সাজে। বাংলার প্রথম ম্যাগনাম অপাস হবে এটি- মনে করছেন টালিউডের একাংশ।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

85,000FansLike
285,000SubscribersSubscribe

Latest Articles

Translate »