এখানেই বিনোদন

মিঠুনের মেডিকেল বুলেটিন আর পরিবারের লোকদের বক্তব্যের বিস্তর ফারাক


উপমহাদেশের “ড্যান্সিং আইকন” খ্যাত অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী টালিউড, বলিউড ও ঢালিউড কাঁপানো মহা তারকা। মুম্বাই, কলকাতা, বাংলাদেশ- এই তিন জায়গায় তার রয়েছে বিপুল দর্শক প্রিয়তা। সেই মেগাস্টার মিঠুন চক্রবর্তী বর্তমানে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে চিকিৎসকদের মন্তব্য আর পরিবারের সদস্যদের বক্তব্যের মধ্যে আকাশ- পাতাল তফাত। আর অসুস্থতা নিয়ে যখন ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে, ঠিক সেই মুহূর্তে প্রকাশ পেল নায়কের মেডিকেল বুলেটিন।

মিঠুনের মেডিকেল বুলেটিনের সঙ্গে মিল নেই পুত্রবধূর বক্তব্যের। এতে চিন্তিত হয়ে পড়েছেন মিঠুনভক্ত ও নেটিজেনরা। কলকাতার অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি হওয়া মিঠুনের মেডিকেল বুলেটিন প্রকাশ করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ওই বুলেটিনে স্পষ্ট লেখা মিঠুনের শারীরিক অসুস্থতার বিষয়টি।

বুলেটিনে লেখা, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত শ্রী মিঠুন চক্রবর্তী (৭৩) শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯ টা ৪০ মিনিটের দিকে কলকাতার অ্যাপোলো মাল্টিস্পেশ্যালিটি হাসপাতালে জরুরি বিভাগে ভর্তি হন। তার অসুস্থতার ধরন ছিল ডান দিকের বিভিন্ন অঙ্গের অবশতা।

বুলেটিনে আরও লেখা, শারীরিক দুর্বলতা নিয়ে ভর্তি হলে মিঠুনের প্রয়োজনীয় ল্যাবরেটরি, রেডিওলোজি ও এমআরআই টেস্ট করা হয়। টেস্টের রিপোর্টে ব্রেনের স্ট্রোক ধরা পড়ে। বর্তমানে তিনি সুস্থ আছেন, তবে ডাক্তারের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন। তার ডায়েটে রাখা হয়েছে নরম খাবার।

অন্যদিকে মিঠুনের স্ট্রোক আর বুকে ব্যথার অসুস্থতার খবরকে মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন মিঠুনের পুত্রবধূ মাদলসা শর্মা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, বিশেষ সাক্ষাৎকারে মাদলসা বলেছেন, শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকালে ‘শাস্ত্রী’ সিনেমার শুটিং সেটে হঠাৎ অসুস্থ হলে সিনেমার পরিচালক সোহম চক্রবর্তী দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করেন মিঠুনকে। তার এমআরআইয়ে বুকে ব্যথা, স্ট্রোক, ধরা পড়ে। এসবই ভুয়া কথা।

মাদলসা আরও বলেন, ‘রুটিন চেকআপের জন্যই আমার শ্বশুরকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিচ্ছেন।’ কলকাতার অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি মিঠুনের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে, এমনও দাবি করেছেন মাদলসা।

অন্যদিকে, মিঠুন চক্রবর্তী র স্বাস্থ্যের সর্বশেষ অবস্থা জানাতে গিয়ে একই ধরণের বক্তব্য দেন তার বড় ছেলে মিমোহ চক্রবর্তী।ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে মিমোহ বলেছেন, ‘তিনি শতভাগ সুস্থ আছেন এবং এটি তার রুটিন চেক আপ।’

এদিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আর পরিবারের সদস্যের তথ্যে মিল খুঁজে না পাওয়ায় চিন্তিত হয়ে পড়েছেন মিঠুনভক্ত ও নেটিজেনরা। তারা বক্তব্যের এই অমিল হবার যথাযথ কোন কারণ খুঁজে পাচ্ছে না।

প্রসঙ্গত,‘শাস্ত্রী’ ছবিটি জ্যোতিষ শাস্ত্রের উপর ভিত্তি করে বানানো হচ্ছে। ছবিটির পরিচালনা করছেন পথিকৃৎ বসু। প্রযোজনার দায়িত্বে আছেন সোহম চক্রবর্তীর প্রযোজনা সংস্থা।এই সিনেমায় মিঠুনের সঙ্গে দীর্ঘ ১৬ বছর পর দেবশ্রী রায়কে দেখা যাবে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

70,000FansLike
280,000SubscribersSubscribe

Latest Articles

Translate »