এখানেই বিনোদন

সংগীতশিল্পী সাদী মহম্মদের মৃত্যু নিয়ে রহস্য

দেশের স্বনামধন্য রবীন্দ্র সংগীতশিল্পী সাদী মহম্মদ পাড়ি জমালেন না ফেরার দেশে। বুধবার (১৩ মার্চ) রাতে তিনি আত্মহত্যা করেন বলে জানিয়েছেন স্বজন ও নিকটজনরা। বুধবার (১৩ মার্চ) আনুমানিক রাত সাড়ে ৮টার দিকে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। 

মৃত্যুর বিষয়টি গণমাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন মুক্তিযোদ্ধা ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু। বর্তমানে এ শিল্পীর মরদেহ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে আছে।

সাদী মহাম্মদ রবীন্দ্রসঙ্গীতের ওপরে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। ২০০৭ সালে আমাকে খুঁজে পাবে ভোরের শিশিরে অ্যালবামের মাধ্যমে তিনি সুরকার হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। এ ছাড়া ২০০৯ সালে তার শ্রাবণ আকাশে ও ২০১২ সালে তার সার্থক জনম আমার অ্যালবাম প্রকাশিত হয়। এছাড়াও তিনি সাংস্কৃতিক সংগঠন রবিরাগের পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

স্বজনরা জানান, আজও অন্যদিনের মতো তিনি সংগীত চর্চা করেছেন। সন্ধ্যার পর হঠাৎ তার ঘরের দরজা বন্ধ দেখা যায়। পরে রাতে দরজা ভেঙে তার ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

১৯৭১ সালে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি হত্যা করে তার বাবা সলিমউল্লাহকে। তার বাবার নামে ঢাকার মোহাম্মদপুরের সলিমউল্লাহ রোডের নামকরণ করা হয়। সাদী মহম্মদের ভাই শিবলী মোহাম্মদ বাংলাদেশের একজন স্বনামধন্য নৃত্যশিল্পী।

 ২০১৫ সালে বাংলা একাডেমি  রবীন্দ্র পুরস্কার প্রদান করে এই কিংবদন্তি রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পীকে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

85,000FansLike
285,000SubscribersSubscribe

Latest Articles

Translate »