এখানেই বিনোদন

দুই সন্তানের মাঝে সম্পত্তি ভাগ করে দিলেন অমিতাভ-জয়া


বর্তমান সময়ে বলিপাড়ার আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে বচ্চন পরিবার। অভিষেক-ঐশ্বরিয়ার বিচ্ছেদের গুঞ্জন থেকে শুরু করে অমিতাভ বচ্চনের স্থাবর সম্পত্তির ভাগাভাগি নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে চলছে জল্পনা। অবশেষে জানা গেছে, অমিতাভ বচ্চন তার ৩৭০০ কোটি রুপির সম্পত্তি ভাগ করে দিয়েছেন তার দুই সন্তান ৪৫ বছর বয়সী শ্বেতা বচ্চন ও ৪৩ বছর বয়সী অভিষেক বচ্চনের মাঝে।

ভারতীয় গণমাধ্যম ফ্রি প্রেস জার্নালের তথ্যমতে, সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে ৩ হাজার ৭০০ কোটি রুপির সম্পত্তির ভাগ কীভাবে হবে সেটা জানান বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন। অমিতাভ জানান, তার সম্পত্তি দুই সন্তানের মধ্যে সমান ভাগ করে দিয়েছেন। ছোটবেলা থেকেই ছেলে ও মেয়ের মধ্যে কোনো তফাত করেননি। তাই সম্পত্তির ক্ষেত্রেও দুই সন্তান সমান ভাগ পেয়েছেন।

এর আগে জানা গিয়েছিল অমিতাভ বচ্চন তার জুহুর বাড়ি ‘প্রতীক্ষা’ মেয়েকে উপহার দিয়েছেন। এই বাড়ির আনুমানিক বাজারদর ৫০ কোটি ৬৩ লক্ষ রুপি। তখন গুজব ছড়িয়েছিল ঐশ্বরিয়ার এই বাংলোর প্রতি ভালোলাগা ছিল বলেই এটি ননদকে উপহার দেয়ায় তিনি শ্বশুর বাড়ি ছেড়ে বাবার বাড়ি চলে গিয়েছেন। মুম্বাইয়ের জুহুতে অমিতাভ বচ্চনের জনক, জলসা, বৎসা নামে আরো তিনটি বাংলো রয়েছে।

বাবা অমিতাভ বচ্চনের কাছ থেকে প্রাপ্ত সম্পত্তি ছাড়া এই মুহূর্তে অভিষেক বচ্চনের সম্পত্তির পরিমাণ ২৮০ কোটি। এর সাথে যদি বাবার অংশ যোগ হয় তাহলে তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ হবে ১৮৬০ কোটি রুপি। অর্থাৎ বাবার সম্পত্তির ভাগ পেলে অভিষেকের সম্পত্তি বেড়ে যাবে প্রায় ৫৬৪ শতাংশ।

শ্বেতা বচ্চন নিজে ১১০ কোটি রুপির মালিক। বাবার দেয়া ১৬০০ কোটি রুপি পেলে তার সম্পত্তি বেড়ে হবে ১৬৯০ কোটি রুপি। অর্থাৎ তার মোট সম্পত্তি বাড়বে ১৪৩৬ শতাংশ। এর সাথে আছে ‘প্রতীক্ষা’ বাংলো।

অন্যদিকে কারও সম্পত্তি না পেয়েই এই মুহূর্তে প্রায় ৭৭৬ কোটি রুপির মালিক ঐশ্বরিয়া। ঐশ্বরিয়ার চেয়ে অভিষেকের সম্পত্তি অনেক কম। তবে বাবার সম্পত্তির ভাগ পেলে সম্পত্তির দিক থেকে ঐশ্বরিয়ার চেয়ে এগিয়ে থাকবেন তিনি।

প্রসঙ্গত, সম্পদ সমান ভাগে দুই সন্তানের মাঝে অর্পিত হয়েছে জানা গেলেও সম্পত্তির কোন অংশ কে পেয়েছে তা এখনো প্রকাশ্যে আনেনি বচ্চন পরিবার।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

85,000FansLike
285,000SubscribersSubscribe

Latest Articles

Translate »