এখানেই বিনোদন

‘পরকীয়া’ জীবনের স্বাভাবিক ধর্ম : অপরাজিতা আঢ্য


‘পরকীয়া’ শব্দটি শুনলেই অনেকের মাঝেই একটি নেতিবাচক মনোভাব দেখা যায়। কিছুদিন পরপর শোবিজ থেকে শুরু করে বিভিন্ন অঙ্গনেই এই পরকীয়া নিয়ে নানা ধরনের সংবাদ দেখা যায়। বিয়েতে থাকাকালীন নতুন সম্পর্কে জড়ানোকে পরকীয়া বলে অভিহিত করা হয়ে থাকে। বহু বিয়েই ভেঙে যায় এই কারণে। অন্যান্য অঙ্গন থেকে শোবিজ পাড়ায় তারকাদের মাঝে এর প্রভাব অনেক বেশি।

‘পরকীয়া’ নিয়ে নেতিবাচক মনোভাব সমাজে লক্ষ্য করা গেলেও বিষয়টি বেশ ইতিবাচকভাবেই দেখেন টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য। সম্প্রতি পরকীয়া নিয়ে এক সাক্ষাৎকারে জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী বলেন, পরকীয়া সুস্থতার লক্ষণ।

কলকাতার সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারকে অপরাজিতা বললেন, কেন পরকীয়া আটকাতে হবে। এটা তো সুস্থতার লক্ষণ। চিরাচরিত ছিল। রামায়ণ-মহাভারতের সময় থেকে ছিল পরকীয়া। এটা জীবনের স্বাভাবিক ধর্ম। কারও কাউকে ভালো লাগতেই পারে। আমি কারও সঙ্গে ঘর করি বলে জীবনে কাউকে ভালোবাসব না, কোনো ভালো জিনিস দেখব না—এমনটা তো হতে পারে না। যার যত অপশন বেশি, তার জীবনে তত মানুষ আসতেই পারে। এবার কেউ সেটা কীভাবে ব্যালান্স করবে সেটা সেই মানুষটার ব্যাপার। কিন্তু এতে তো কোনো অপরাধ নেই।

অপরাজিতা মনে করেন, ভালো লাগা হতেই পারে বিয়েতে বা সম্পর্কে থাকাকালীন। আমি আমার সংসারকে বেশি গুরুত্ব দেব না অন্য কাউকে, সেটা আমি ঠিক করব। পাখিকেও তো খাঁচায় বন্দি রাখা ঠিক নয়। কাউকে না ঠকালেই হবে।

প্রসঙ্গত, অপরাজিতাকে এখন দেখা যাচ্ছে ‘জল থইথই ভালোবাসা’ ধারাবাহিকে। এর আগে লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টারে কাজ করেছিলেন তিনি। নতুন শুরু হওয়া এই মেগা সিরিয়াল বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

অপরাজিতাকে দেখা যাচ্ছে কোজাগরীর চরিত্রে। মধ্যবয়স্কা এক নারী, যে জীবনের প্রথমার্ধে স্বামী, সংসার, সন্তানে নিজেকে ঢেলে দিয়েছে। যার জীবনীশক্তি অফুরন্ত। গোটা পরিবারকে বেঁধে রাখে। বিপদে পিঠ দিয়ে আগলায়।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

85,000FansLike
285,000SubscribersSubscribe

Latest Articles

Translate »